2.5k বার ভিউ
"ইসলাম ধর্ম" বিভাগে করেছেন
রাসূল (সা.) বলেছেন, আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নকারী জান্নাতে যাবে না। তাহলে মহিলারা মা, ফুফাতো, খালাতো, চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে কীভাবে আত্মীয়তার সম্পর্ক বজায় রাখবে? স্বামীর ভাগ্নের সামনে যাওয়া কি জায়েজ?


1 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

অর্থাৎ আপনার প্রশ্ন, এদের সঙ্গে কীভাবে আত্মীয়তার সম্পর্ক বজায় থাকবে?

image  

সহজ কথা, তাঁদের সঙ্গে সৌজন্য আচরণ করাটাই হচ্ছে আত্মীয়তার সম্পর্ক বজায় রাখা, আর কিছুই না।

তাদের সঙ্গে পর্দা মেইনটেইন করে আত্মীয়তার সম্পর্ক বজায় রাখবেন। আত্মীয়তার সম্পর্কে এটি সত্য নয় যে, তাদের সঙ্গে আপনি একেবারেই পর্দা লঙ্ঘন করে, ইসলাম যে বিধান দিয়েছে সেটা লঙ্ঘন করে তাদের সঙ্গে নিয়মিত ওঠাবসা করবেন।

আত্মীয়তার সম্পর্ক বজায় রাখার ক্ষেত্রেও কিছু বিধিবিধান আছে। পর্দা লঙ্ঘন না করে তাদের সঙ্গে সৌজন্যমূলক আচরণ করা, মেহমান এলে মেহমানদারি করা, সুখ-দুঃখে অংশগ্রহণ করা। সুতরাং সেখানে যদি আপনি ফ্রিমিক্সিং বা অবাধ মেলামেশার দিকে চলে যান, অর্থাৎ একেবারে দহরম-মহরম অবস্থা তৈরি হয়, সেটাকে ইসলাম হারাম করেছে। এটা আত্মীয়তার সম্পর্ক বজায় রাখার নাম নয়।

আর স্বামীর ভাগ্নের সামনে যাওয়ার জায়েজ নেই। কারণ, স্বামীর ভাগ্নে আরো আশঙ্কাজনক অবস্থা।

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.2k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...