75 বার ভিউ
"ইসলাম ধর্ম" বিভাগে করেছেন

ফজরের নামাজ জামাতে আদায়ের সাওয়াব ও মর্যাদা সম্পর্কে জানতে চাই

ফজরের নামাজ জামাতে আদায়ের সাওয়াব ও মর্যাদা

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

ফজরের নামাজ জামাতে আদায়ের সাওয়াব ও মর্যাদা সম্পর্কে জানতে চাই 

অন্যান্য নামাজের তুলনায় ফজরের নামাজ আদায়ে গুরুত্ব অনেক বেশি। কারণ যে সময়টিতে মানুষ ঘুমের ঘোরে ব্যস্ত। সে সময়টিতে আরামের ঘুম ভেঙে সকাল সকাল ওঠে নামাজ আদায় করা সবার জন্য সহজ নয়।

তাই ফজরের নামাজ পড়তে ওঠা এবং জামাতের সঙ্গে তা আদায় করায় প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অনেক সাওয়াব ও মর্যাদার কথা ঘোষণা করেছেন। হাদিসে এসেছে-

> হজরত জুনদুব ইবনে সুফিয়ান রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি ফজরের নামাজ আদায় করল, সে আল্লাহর হেফাজতে চলে গেল। অতএব তোমরা আল্লাহ তাআলা হেফাজতকে চূর্ণ কর না; তুচ্ছ মনে কর না।’ (তিরমিজি, মুসলিম, তারগিব)

> হজরত বুরাইদা আল-আসলামি রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘যারা অন্ধকার উপেক্ষা করে মসজিদে যায় তাদেরকে কেয়ামতের দিন পরিপূর্ণ নুরের সুখবর দাও।’ (ইবনে মাজাহ, তিরমিজি)

উল্লেখিত হাদিসের আলোকে বুঝা যায় যে, ফজরের নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করার ফজিলত অনেক বেশি। মহান আল্লাহ তাআলা জামাতের সঙ্গে ফজরের নামাজ আদায়কারীকে নিজ জিম্মায় নিয়ে যান। দুনিয়ার সব বিপদাপদ থেকে মুক্ত থাকবে সে।

শুধু তাই নয়, যে ব্যক্তি ফজর নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করবে তার জন্য রয়েছে বড় সুসংবাদ। সে পাবে সারা রাত ইবাদতের সাওয়াব। তবে শর্ত হলো ওই ব্যক্তিকে এশার নামাজও জামাআতের সঙ্গে আদায় করতে হবে। হাদিসে এসেছে-

> হজরত উসমান ইবনে আফফান রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি এশার নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করে, তার জন্য অর্ধরাত (নফল) নামাজ আদায়ের সাওয়াব রয়েছে। আর যে ব্যক্তি এশা ও ফজরের নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করবে, তার জন্য সারা রাত (নফল) নামাজ আদায়ের সমপরিমাণ সাওয়াব রয়েছে।’ (তিরমিজি, মুসলিম, আবু দাউদ)

সুতরাং সবার উচিত যথাসময়ে ফজর নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করা। কোনোভাবেই যেন অলসতা ও অবহেলায় ফজর নামাজ কাজা না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখা আবশ্যক। কেননা ফজর নামাজ আদায়কারীকে মহান আল্লাহ তাআলা তার নিজ জিম্মায় নিয়ে যান। আল্লাহুম্মা আমিন।

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.1k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...