223 বার ভিউ
"ত্বকের যত্ন" বিভাগে করেছেন

ত্বকের যত্নে ভুল | এড়িয়ে চলুন ৬টি অভ্যাস ত্বক রাখুন ফ্ললেস?

ত্বকের যত্নে ভুল | এড়িয়ে চলুন ৬টি অভ্যাস ত্বক রাখুন ফ্ললেস?

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

ত্বকের যত্নে ভুল | এড়িয়ে চলুন ৬টি অভ্যাস ত্বক রাখুন ফ্ললেস?

এই ওয়েদারটা আমার একদমই ভালো লাগে না, এমন ওয়েদারে আমার স্কিনের নানা ধরনের সমস্যাগুলো দেখা দেয়। ”কি? আপনিও কি এভাবেই ওয়েদারকে প্রতিনিয়ত দোষারোপ করে যাচ্ছেন আপনার স্কিনের নানা ধরনের সমস্যার কারণে? স্কিনের প্রবলেমগুলো যে শুধুমাত্র আবহাওয়ার পরিবর্তনের জন্যেই হয় তা কিন্তু না। আপনার স্কিন কতটা ভালো থাকবে কতটা সুন্দর হবে তা কিন্তু অনেকটাই নির্ভর করে আপনার জীবনযাত্রার উপর। আপনার চলাফেরা, খাওয়া-দাওয়া, যত্ন নেয়া সবকিছুর উপরই কিন্তু পরোক্ষভাবে এবং প্রত্যক্ষভাবে নির্ভর করে আপনার স্কিনের ফ্ললেসনেস (flawlessness)। ত্বকের যত্নে ভুল করে থাকলে আপনার স্কিনের স্বাভাবিক গ্লো (Glow) হারিয়ে যেতে পারে।

শুধুমাত্র যে স্কিনে অনেক ধরনের প্রোডাক্ট ব্যবহার করলেই আপনার স্কিন উজ্জ্বল, সুন্দর, প্রাণবন্ত আর ফ্ললেস হয়ে উঠবে তা কিন্তু নয়। অনেক সময় আপনার কিছু ছোটখাট ভুলের কারণে আপনার স্কিনের নানাধরনের সমস্যাগুলো হয়ে থাকে। যেগুলো না জেনেই আপনারা করছেন। আজ আমি আপনাদের ত্বকের যত্ন নিতে ভুলগুলোর কথা জানাবো যা আপনারা সচরাচর করে থাকেন। ত্বকের যত্ন করার সময় ভুল এড়িয়ে চললে আপনারা হেলদি স্কিন পেতে পারেন। তাই ফ্ললেস স্কিন পেতে চাইলে কোনভাবেই ত্বকের যত্নে ভুল করা যাবে না। তো চলুন জেনে নেই আমরা কিভাবে করে থাকি ত্বকের যত্নে ভুল ।

ত্বকের যত্নে ভুল 

সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা

সূর্যের বেগুনী রশ্মি ত্বকের অনেক বেশি ক্ষতি করে। ত্বকের নানাধরনের সমস্যাগুলো দেখা দেয় অনেক সময় একারণেই। তাই সানস্ক্রিন (sunscreen) ব্যবহার করবেন। এতে করে সূর্যের বেগুনি রশ্মি আপনার ত্বকের কোন ক্ষতি করতে পারবেনা। অনেক সময় একারণে স্কিনে ক্যান্সার হয়, ডার্ক স্পট (Dark spot), ট্যানিং (Tanning) এইসবও হয়ে থাকে। আর এধরনের সকল প্রকার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন যদি আপনি সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন।

কম ঘুমানো

স্কিনের সবচেয়ে বেশি সমস্যা যে কারনে হয় তা হল ঘুম কম হওয়ার কারনে। প্রতিদিন ৭-৮ ঘন্টা ঘুম প্রয়োজন একজন মানুষের। আর এর থেকে কম ঘুম হলেই দেখা যায় আপনার স্কিনে ডালনেস (Dalness) দেখা দিবে। ডার্ক সার্কেলের কথা বলেন আপনারা সবাই সেটাও কিন্তু কম ঘুমের কারনেই হয়ে থাকে। কম ঘুম আপনার স্কিনের সমস্যার প্রধান কারনগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি কারন। তাই পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুমান এবং স্কিন রাখুন সুন্দর।

অধিক-এক্সফলিয়েটিং

স্ক্রাবিং করা স্কিন কেয়ার রুটিনের মধ্যে অনেক গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয়। তবে আপনি যদি প্রয়োজনের অধিক স্ক্রাবিং (scrubbing) করেন তাহলে কিন্তু হিতে বিপরীতই হবে। অতিরিক্ত স্ক্রাবিং স্কিনকে ল্যুজ (Loose) করে ফেলে। এমনকি স্কিন অনেক বেশি শুষ্ক করে ফেলে এবং বলিরেখাও পরতে পারে প্রয়োজনের অধিক স্ক্রাবিং করলে। তাই প্রতি সপ্তাহে একবারই স্ক্রাবিং করুন। আর অবশ্যই ভালো মানের এক্সফলিয়েটর ব্যবহার করুন।

মেকআপসহ ঘুমানো

আপনাদের মধ্যে অনেকেই এই কাজটি করেন। কোন অনুষ্ঠান থাকলে দেখা যায় অনেক মেকআপ করা হয় কিন্তু বাসায় এসে ক্লান্ত হয়ে মেকআপ পরিষ্কার না করেই ঘুমিয়ে যান। শুধুমাত্র অনুষ্ঠানে যারা যান তারাই নন, অনেকেই আছেন যারা প্রতিদিনই মেকআপ করেন তারাও অনেক সময় মেকআপ ঠিক করে না পরিষ্কার করেই ঘুমাতে চলে যান। এটা কিন্তু আপনার স্কিনের জন্যে অনেক বেশি ক্ষতিকারক। তাই অবশ্যই মেকআপ রিমুভ (Remove) করে তারপর ভালো মানের ক্রিম ব্যবহার করুন।

অপর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান করা

যদি আপনি পর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান না করেন তবে আপনার স্কিনের যেকোন ধরনের ট্রিটমেন্ট চলতে থাকলে সেটার ফলাফল আপনি ভালো করে পাবেন না। স্কিনের যেকোন সমস্যায় আপনি যদি কোন চিকিৎসা করান তবে ভালো ফলাফল তখনই পাবেন যখন আপনি পানি খাবেন পর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান করবেন। প্রতিদিন অবশ্যই ৮-১০ গ্লাস পানি পান করুন। পানি ঠিকমত পান করলে আপনার স্কিন ভেতর থেকে হবে প্রাণবন্ত। আর পানি মইশ্চারাইজার হিসেবে আপনার ত্বকের ভেতর থেকে কাজ করে।

ডায়েট

আপনার কি মনে হচ্ছে যে ডায়েটের কারনে আপনার স্কিনে সমস্যা হচ্ছে? তাহলে ডায়েটে একটু পরিবর্তন আনুন। যে সকল খাবার ত্বকের জন্যে ক্ষতিকারক সেগুলো খাওয়া বন্ধ করুন। আর বেশি করে শাক-সবজি খান। যাতে করে আপনার ত্বক থাকে অনেক বেশি সুন্দর আর হেলদি।

আপনিও কি এই ভুলগুলো করছেন? তবে এই ভুলগুলো করা বন্ধ করুন এবং আপনার স্কিন কেয়ার রুটিনে পরিবর্তন আনুন। এখনই সময় আপনার স্কিনকে হেলদি এবং প্রাণবন্ত করার।

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.1k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...