99 বার ভিউ
"স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে করেছেন

এক কুচি আদা বদলে দিতে পারে জীবন; জানুন কীভাবে?

এক কুচি আদা বদলে দিতে পারে জীবন; জানুন কীভাবে?

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

এক কুচি আদা বদলে দিতে পারে জীবন; জানুন কীভাবে?

আদা যে শুধুমাত্র স্বাদ ও ঘ্রাণ বাড়িয়ে রান্নায় ভিন্নমাত্রা যোগ করে তা নয়, আদা একটি গুরুত্বপূর্ণ ওষধিও বটে। যা শরীরের অনেক সমস্যা দূর করে দেয়। চিকিত্‍সকদের মতে, রান্না করা আদার চাইতে কাঁচা আদার উপকার অনেক অনেক বেশি।

জেনে নিন নিয়মিত আদা খেলে কী কী শারীরিক সমস্যার সমাধান পাওয়া যায়— বমিভাব বা বমি হলে আদা কুচি চিবিয়ে খান। অথবা আদার রসের সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে পান করুন। তাত্‍ক্ষণিক আরাম পাবেন।-

গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ২ কাপ পানিতে এক টুকরো আদা ছেঁচে গরম করে চায়ের মতো তৈরি করে পান করুন। দুর্বল লাগছে? এক টুকরো আদা খেয়ে নিন। অনেকটা শক্তি পাবেন। পরে চিকিত্‍সকের পরামর্শ নিন। জানুন দুর্বলতার কারণ।

আদার রস ব্যথা কমাতেও ওষুধের মতো কাজ করে। যেখানে আঘাত সেখানে লাগাতে পারেন আদার রস। এমনকি আদার রস পান করলেও ব্যাথা কমে। নিয়মিত আদা খেলে পুরুষের প্রজনন ক্ষমতা বাড়ে। স্পার্ম কাউন্ট বৃদ্ধি করে আদা।

প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক উপাদানে ভরপুর আদা। তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। নিয়মিত আদা খাওয়ার অভ্যাস করলে ছোটখাটো অনেক রোগের হাত থেকেই মুক্তি মেলে ,ক্ষুধামান্দ্যে ভুগছেন? তা হলে চিবিয়ে অথবা রস করে আগে আদা খেয়ে নিন।

আধ ঘণ্টার মধ্যেই ক্ষুধামান্দ্য দূর হবে এবং খাবারে রুচি ফিরে আসবে। আদা হজমের সমস্যায় খুব ভাল কাজ করে। প্রতিদিন সকালে ১ কাপ আদা চা পান করলে হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

গলা খুশখুশ কমাতেও উপকারী আদা। ঠাণ্ডা লেগে কাশি হলেও আদা গলা স্বাভাবিক রাখতে কাজে লাগে।

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.1k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...