63 বার ভিউ
"ত্বকের যত্ন" বিভাগে করেছেন

ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট করার জন্য মেসতাই যথেস্থ মেসতা খুবি খারাপ ও ভয়ানক চর্মরোগ মেসতা দূর করার কোন ঘরোয়া উপায় আছে কী মেসতা দূর করতে হলুদ বাটা ব্যবহারের নিয়ম জানতে চাই ?

মেসতা দূর করতে হলুদ বাটা ব্যবহারের নিয়ম

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

মেসতা দূর করতে হলুদ বাটা ব্যবহারের নিয়ম :

আজকের আয়োজনে রয়েছে মেসতা দূর করতে হলুদ বাটা ব্যবহারের নিয়ম। আজ আপনাদের কে দেখাবো হলুদ বাটা ব্যবহারের নিয়ম চলুন জেনে নিই ।

উপকরন :

কাচা হলুদ বাটা ১ চা চামচ

লেবুর রস ১ চা চামচ

ব্যাবহারের নিয়ম :

উপাদান দুটি একত্রে ভালোভাবে মিশিয়ে প্যাক তৈরী করে নিন।

শুধুমাত্র মেছতা বা কালচে দাগের উপর ভালোভাবে লাগান।

১৫ মিনিট পরে শুখিয়ে গেলে সাধারন পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

সতর্কতা :

গোশলের আগে কাজটি করলে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

মুখ ধুয়েফেলার তিন বা চার ঘন্টা রোদ বা রান্নাঘরে যাওয়া যাবে না।

প্রতিদিন কমপক্ষে একবার কিংবা দাগ বেশি হলে দুই বার ব্যাবহার করতে পারেন যতদন পর্যন্ত আপনার অবাঞ্চিত দাগ দুর না হয়।

যাদের ত্বক সংবেদনশীল অর্থাৎ লেবুর রস সহ্য করতে পারে না তারা লেবুর রসের সাথে পানি মিশিয়ে নিতে পারেন অথবা কাচা দুধ ব্যাবহার করতে পারেন।

কয়েকটি প্রাকৃতিক পদ্ধতি মেছতা দূর করার :

১ . চন্দনে অ্যান্টি এইজিং এবং অ্যান্টিসেপটিক উপাদান আছে যা ত্বকের হাইপারপিগমেনশন কমিয়ে মেছতার দাগ দূর করে থাকে। ২ টেবিল চামচ চন্দনের গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ গ্লিসারিন, এবং লেবুর রস দিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে নিন। এবার এই প্যাকটি কালো বা খয়েরী দাগের ওপর লাগান। কিছুক্ষণ পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২ . টেবিল চামচ কমলার রস, ১ চা চামচ লেবুর রস, ভিটামিন ই, ২ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। ভাল করে এই প্যাকটি মুখে লাগান। আধা ঘন্টার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার এটি ব্যবহার করুন।

৩ . প্রতিরাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে চন্দন পাউডার, অলিভ অয়েল, বাদাম অয়েল মিশিয়ে মুখে ম্যাসাজ করতে পারেন। সারারাত রেখে সকালে ঘুম থেকে উঠে ধুয়ে ফেলুন।

ধন্যবাদ

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.1k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...