30 বার ভিউ
"নেটওয়ার্কিং" বিভাগে করেছেন
আমি নেটওয়ার্কের 2G, 3G, 4G বিষয়গুলো বুঝি না। এগুলোর মাঝে আসলে পার্থক্যটা কী ?

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

এখানে G বলতে Generation বা প্রজন্ম বুঝানো হয় ।

2G : এটি দ্বিতীয় প্রজন্মের তার বিহীন নেটওয়ার্ক । এই ব্যবস্থাতে ডিজিটাল তার বিহীন মোবাইল যোগাযোগের ক্ষেত্রে 28.8 Kbps হারে তথ্য আদানপ্রদান সংক্রান্ত সেবা দেয়া সম্ভব হয় । ১৯৯১ সালে ফিনল্যান্ডের রেডিওলিনজা নামক একটি GSM অপারেটর সর্বপ্রথম ব্যাবসায়িকভাবে এবং GSM স্ট্যান্ডার্ডে 2G তারবিহীন নেটওয়ার্ক চালু করেছিল । তখনকার এধরনের অন্যান্য বিদ্যমান প্রযুক্তি অপেক্ষা 2G তিনটি দিক দিয়ে এগিয়ে ছিলো । এ বাড়তি সুবিধাগুলো হলো :

-2G প্রযুক্তিতে ফোনে নিরাপদভাবে কথাবার্তা বলার জন্য সম্পূর্ণরূপে এনক্রিপশনের ব্যাবস্থা ছিলো ।

-তরঙ্গ বর্ণালি ব্যবহারের ক্ষেত্রে 2G অন্যান্য প্রযুক্তি অপেক্ষা অনেক বেশি কর্মদক্ষ ছিলো ।

-2G এর মাধ্যমে SMS এর মতো বিভিন্ন রকম তথ্যও প্রেরণ করা যেতো ।

-2G চালু হওয়ার পূর্বের বিদ্যমান মোবাইল টেলিফোন সিস্টেমকে ইতিহাস হিসেবে 1G হিসেবে উপাধি দিয়ে দেওয়া হয় । 1G নেটওয়ার্কে রেডিও সিগনাল ছিল অ্যানালগ। অন্যদিকে 2G নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হয়েছিল ডিজিটাল পদ্ধতি । তবে তখন উভয় নেটওয়ার্কই রেডিও টাওয়ারের সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রে ডিজিটাল সিগনাল ব্যবহার করতো ।

3G : এটি হলো তৃতীয় প্রজন্মের তারবিহীন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি । এই প্রযুক্তিতে ন্যূনতম 500 Kbps থেকে সর্বোচ্চ 3 Mbps হারে তথ্য আদান প্রদান করা সম্ভব । এটি আগের সকল তারবিহীন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তিগুলোর চেয়ে অধিক গতিসম্পন্ন এবং উন্নত । 3G নেটওয়ার্ক প্রযুক্তিতে 2G নেটওয়ার্কের সুবিধাসমূহের পাশাপাশি আরও কিছু সুবিধা উপভোগ করা যায় । যার মধ্যে রয়েছে দ্রুত গতির ইন্টারনেট, ভিডিও কল এবং মোবাইল টিভি ।

3.5G : এই নেটওয়ার্ক প্রযুক্তিতে 3 Mbps থেকে 14 Mbps পর্যন্ত গতি পাওয়া সম্ভব ।

4G : ২০০৮ সালের মার্চে ITU (International Telecommunication Union) এর বেতার যোগাযোগ সেক্টর 4G এর প্রয়োজনীয় বিষয়বস্তুসমূহের একটি রূপরেখা প্রবর্তন করে । তারা উচ্চ মোবিলিটি যোগাযোগের জন্য 100 Mbps এবং নিম্ন মোবিলিটি যোগাযোগের জন্য 1 Gbps গতি প্রণয়ন করে । মোবাইল WiMax এবং LTE-এর প্রথম অবমুক্তির পর থেকে যেসব সেবা 1 Gbps এর কম গতি প্রদান করে, ITU এর নীতি অনুযায়ী সেগুলোকে 4G সেবা বলা যাবে না, যদিও সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সেগুলোকে 4G সেবা বলেই বাজারজাত করে ।

এককথায়, 2G, 3G, 3.5G, 4G এর মধ্যে মূল পার্থক্য এদের গতিতে ।


আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.1k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...