45 বার ভিউ
"রোগ ব্যাধি" বিভাগে করেছেন
আমার আশেপাশের সবারই ভাইরাস জ্বর হচ্ছে। আমারও শরীরটা ভালো লাগছে না। মনে হচ্ছে জ্বর আসবে। ভাইরাস জ্বরের হাত থেকে বাঁচার কি কোনো উপায় আছে ?


1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

সময়টা এখন ভাইরাস জ্বরেরই। তাই থাকা প্রয়োজন সচেতন। একটু ঠান্ডা বা গরমেই লেগে যেতে পারে সর্দি-কাশি এবং তা থেকে জ্বর। এই জ্বর মোটামুটিভাবে ৩-৭ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হয়।

ভাইরাস জ্বরের লক্ষণ

মানুষের শরীরে ভাইরাস আক্রমণের কয়েক দিনের মধ্যেই জ্বর দেখা দেয়। ভাইরাস জ্বরের কারণে শরীরে শীত-শীত ভাব, কাঁপুনি, মাথাব্যথা, হাত-পায়ের গিরায় ব্যথা, খাবারে অরুচি, নাক দিয়ে অঝোরে পানি পড়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, চোখ দিয়ে পানি পড়া, চুলকানি, ঠান্ডা, সর্দি, দেখা দেয়। অনেকের ক্ষেত্রে পেটের সমস্যা, বমি ও ডায়রিয়া হয়। শিশুদের ক্ষেত্রে টাইপ ‘বি’ ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সংক্রমণে পেটব্যথাও হতে পারে। বাতাসের মাধ্যমে ও আক্রান্ত ব্যক্তির কাশি থেকেও ভাইরাস জ্বরের সংক্রমণ হতে পারে। ঠান্ডা লাগলে বা বৃষ্টিতে ভিজলেও ভাইরাস জ্বরের সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে।

ভাইরাস জ্বরের চিকিৎসায়

ভাইরাস জ্বর হলে দুশ্চিন্তার কারণ নেই। এ জ্বরের জন্য কোনো অ্যান্টিবায়োটিকের দরকার নেই। জ্বরের জন্য প্যারাসিটামল খেলেই হয়। তবে সপ্তাহ খানেকের বেশি সময় ধরে জ্বর দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ভাইরাস জ্বরের প্রতিরোধে যা করবেন :

ভাইরাস জ্বর অনেক বেশি ছোঁয়াচে। যতই সাবধানে থাকুন না কেন এটি হবেই। তারপরও কিছু অগ্রীম সতর্কতা আপনাকে ভাইরাস জ্বরের আক্রমণ থেকে বাঁচাতে সক্ষম।

- কোনোভাবেই যেন ঠান্ডা না লাগে সেদিকে খেয়াল রাখুন।

- অতিরিক্ত রোদে ছাতা ব্যবহার করুন।

- বৃষ্টির পানি যেন মাথায় না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখুন। যদি পড়েও যায় তা ভালোভাবে ধুয়ে ফেরুন।

- গা হাত পা ব্যথা বা ম্যাজ ম্যাজ করা জ্বর হওয়ার পূর্ব লক্ষণ। এমতাবস্থায় অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে অগ্রীম ব্যবস্থা নিন।

জ্বর হলে যা করবেন :

ভাইরাস জ্বর হলে প্রচুর পানি পান করুন। সম্ভব হলে পানিতে লবণ বা খাওয়ার স্যালাইন মিশিয়ে নিন। বিশ্রাম নিন। গলাব্যথা কমাতে কুসুম গরম পানিতে আধা চামচ লবণ মিশিয়ে গড়গড়া করে দেখতে পারেন। খাবারের মধ্যে ভিটামিন সি ও জিঙ্কযুক্ত খাবারে প্রাধান্য দিন। শরীর পরিষ্কার রাখুন, গোসল করুন নিয়মিত। অযথা বৃষ্টিতে ভিজবেন না। শিশুদের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন। চার-পাঁচ দিনের বেশি হয়ে গেলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 

ধন্যবাদ


আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.2k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...