79 বার ভিউ
"ইসলাম ধর্ম" বিভাগে করেছেন

আমার আব্বা ব্যাংক থেকে লোন (ঋণ) নিয়ে বাড়ি বানিয়েছিলেন চড়া সুদে। সে ঋণ এখনো আমাদের শোধ করতে হচ্ছে অনেক সুদে। ইসলামের আলোকে এটা কি নাজায়েজ হচ্ছে?

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

আপনাদের যে কাজটি করণীয়, সেটা হচ্ছে যত দ্রুত সম্ভব এই ঋণ পরিশোধ করে দিয়ে সুদ থেকে বেরিয়ে আসা। কারণ এখান থেকে বেরিয়ে আসা আপনাদের জন্য ওয়াজিব। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন কঠিনভাবে সুদকে হারাম করেছেন।আপনার আব্বা যেহেতু বাড়িটি করে গেছেন, তাই এখন আপনার আব্বাকেও বাঁচানো দরকার।  নিজেরাও বাঁচা দরকার। আর যদি আব্বাকে বাঁচাতে না পারেন, অন্ততপক্ষে নিজেকে বাঁচাতে হবে।আল্লাহতায়ালা বলেছেন, ‘কু-আনফুসাকুম’।  এখানে প্রথমে নিজেকে বাঁচানোর কথা বলা হয়েছে। এখন আপনি আব্বাকে যদি বাঁচাতে না পারেন তাহলে নিজেকে বাঁচাতে হবে। কিন্তু আপনার তো দুটোই ধ্বংস করার কোনো সুযোগ নেই। তাই এই সুদ থেকে নিজেকে বাঁচানোর জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা আপনাদের করতে হবে। কারণ ইসলামে সুদ কঠিনভাবে হারাম।কোরআনে বলা হয়েছে যে, ‘যদি এটা না করো তোমরা তাহলে তোমাদেরকে বলে দিচ্ছি তোমরা আল্লাহ এবং তাঁর রাসুলের পক্ষ থেকে যুদ্ধের ঘোষণা নিতে হবে’ (সুরা-আল বাকারা)। সুতরাং এ কাজটি অত্যন্ত কঠিন, যেহেতু ইসলামে কঠিনভাবে হারাম করা হয়েছে। 

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.2k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।

বিভাগসমূহ

ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...