112 বার ভিউ
"প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে করেছেন

আমি আমার ভালোবাসা কে সারা জীবন আগলে ধরে বেচে থাকতে চাই।আমি চাই সারাটি জীবন আমাদের ভালোবাসা অটুক থাক  এখন আমাদের এই ভালোবাসা টিকিয়ে রাখার জন্য আমার কী কী করা উচিত সে সম্পর্কে জানতে চাই?

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

প্রেমিক/প্রেমিকাকে বুঝতে হবে কোন আচরণটি আকর্ষণীয় এবং কোনটি বিরক্তিকর। একে অপরকে ভালোবাসার বন্ধনে বাধার চেষ্টা করুন অধিকার খাটিয়ে বিরক্তিকর কোন বন্ধনে নয়।

অন্যের সঙ্গে তুলনা করবেন না: ‘ওর ওই অভ্যাসটা ভালো, ও ওই কাজটা খুব ভালো করে, ওর ব্যবহার, আচার-আচরণ খুব ভালো’ এসব বলে অকারণ একজনের সঙ্গে অন্যজনের তুলনা না করাই ভালো। যেকোনো ভালো কাজের জন্য একে অপরের বাহবা দিন, উৎসাহ দিন একে অপরকে। অন্য কারো সাথে তুলনা করে তার মানসিকতাকে আঘাত করবেন না। অন্য একজনের সাথে তুলনা করা সব চাইতে বড় আঘাত আপনার ভালোবাসার মানুষটির জন্য। এ ধরনের অভ্যাস ত্যাগ করাই ভালো।

প্রেমের স্মৃতিচারণ করবেন না: এর আগেও আপনি অন্য কোনও সম্পর্কে জড়িত ছিলেন। সে কথা মনে করে কথায় কথায় পুরানো কথা না তোলাই ভালো। সাবেকের সঙ্গে বর্তমান সম্পর্কের তুলনা করাতো একেবারেই উচিত না। এ অভ্যাসটি আপনার বর্তমান সম্পর্কের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। আপনি আপনার সাবেকের সম্পর্কে ভালো বা খারাপ যাই বলুন না কেন আপনার বর্তমান সম্পর্কের ওপর তার প্রভাব পড়তেই পারে। এতে করে আপনার প্রেমিক/প্রেমিকা ভাবতে পারেন আপনার মনে এখনও আপনার সাবেক মানুষটিই আছে। সম্পর্কচ্ছেদ হওয়ার জন্য এ সামান্য চিন্তাই যথেষ্ট। সুতরাং এই অভ্যাসটি দূর করলেই ভালো।সম্পর্ক টিকিয়ে রাখবেন যেভাবে

একে অপরকে যথেষ্ট সময় দেয়া: একটা ভালোবাসার সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে গেলে একে অপরের থেকে আমরা সব থেকে বেশি যেটা আশা করি, তা হলো-তার গুরুত্বপূর্ণ সময়। কতটা সময় একে অপরের সঙ্গে কাটাচ্ছে তা খুব গুরুত্বপূর্ণ। একে অপরের সঙ্গে সময় কাটানো এবং একে অপরের কথা মন দিয়ে শোনাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির কথা শুনলেন না বা শুনতে চাইলেন না এতে করে তিনি ভাবতে পারেন আপনি তাকে এড়িয়ে চলছেন। এ ভাবনাটি সম্পর্কের জন্য ভালো নয়। প্রেমিক/প্রেমিকার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনুন। এতে করে তিনি নিজেকে আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ মনে করবেন। এবং সেই হিসেবে তিনিও আপনাকে গুরুত্ব দেবেন।

দোষারোপ করবেন না: সবসময় যেকোনও বিষয়ে একে অপরকে দোষারোপ করবেন না। অপরজন যদি ভুলবশত কোনও ভুল করে ফেলে, সেটাকে শুধরে দেয়ার চেষ্টা করুন। তবে সেটাও খুব সচেতনভাবে। কারণ আপনার একটা ভুল কথা অন্য বার্তা দিতে পারে অপরজনের কাছে। তুমি এ কাজটি করেছিলে, তুমি ওই কথাটা বলেছিলে এ ধরনের কথাবার্তা আপনার ভালোবাসার মানুষটির কাছে আপনাকে শুধুমাত্রই একজন বিরক্তিকর মানুষ হিসেবে উপস্থাপন করে। এ ধরনের অভ্যাস দূর করুন, সম্পর্ক ঠিক থাকবে।

করেছেন

একদম সত্য বলেছেন

আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.6k টি প্রশ্ন

7.5k টি উত্তর

250 টি মন্তব্য

1.1k জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...